বিএসটিআই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২১

বিএসটিআই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২১ঃ বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ড এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই)-এর রাজস্ব খাতভূক্ত নিম্ন বর্ণিত শূন্য পদ সমূহে নিয়োগের নিমিত্ত বাংলাদেশের স্থায়ী বাসিন্দাদের নিকট হতে নিম্নোক্ত শর্তে অনলাইনে আবেদন পত্র আহবান করা যাচ্ছে।

বিএসটিআই নিয়োগ ২০২১

বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ড এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন নিয়োগ ২০২১ঃ বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ড এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই) এর নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে বিভিন্ন পদে বিশাল জনবল নিয়োগ দেয়া হবে। বাংলাদেশের সকল জেলার নারী-পুরুষ প্রার্থীরা নির্ধারিত সময়ের মধ্যে আবেদন করতে পারবেন।

চাকরির ধরনসরকারি চাকরি
জেলাসকল জেলা
চাকরি দাতা সংস্থাবিএসটিআই
ওয়েবসাইটbsti.gov.bd
মোট পদ০১ টি
পদের সংখ্যা০১ জন
বয়সসীমা১৮-৪০ বছর
শিক্ষাগত যোগ্যতাউচ্চ মাধ্যমিক
আবেদনের শেষ তারিখ১৫ নভেম্বর, ২০২১
আবেদনের মাধ্যমডাকযোগ

আরো দেখুন- সাপ্তাহিক চাকরির খবর পত্রিকা

বিএসটিআই নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই)-এর চট্টগ্রাম ও খুলনার প্রধান কার্যালয়ের কর্মকর্তা/কর্মচারীদের জন্য নিম্নোক্ত শর্তে ১ (এক) জন অফিস সহকারি কাম কম্পিউটার অপারেটর নিয়োগের জন্য অভিজ্ঞতা সম্পন্নদের নিকট হতে দরখাস্ত আহ্বান করা যাচ্ছে।

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ ২য় শ্রেণির উচ্চ মাধ্যমিক পাশ হতে হবে এবং কম্পিউটার টাইপ ও অফিসের কাজ জানতে হবে।

আগ্রহীদের তাদের পূর্ণ জীবন বৃত্তান্ত ও প্রয়োজনীয় শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতার সনদপত্রের সত্যায়িত কপি, জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যায়িত কপি এবং সদ্য তোলা পাসপোর্ট সাইজের ২ (দুই) কপি ছবিসহ আগামী ১৫/১১/২০২১ তারিখের মধ্যে আবেদন করার জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে।

বিএসটিআই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২১
বিএসটিআই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

আরো দেখুন-

BSTI নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি 2021

প্রার্থীকে অবশ্যই বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে। সকল জেলার প্রার্থী বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত পদে আবেদন করতে পারবেন। একজন প্রার্থী একটির বেশি পদে আবেদন করতে পারবেন না।

বয়সসীমা ০১ জুন, ২০২১ তারিখে ক্রমিক নং ১ ও ক্রমিক নং ২ ব্যতীত বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত অন্যান্য সকল পদের জন্য বয়স ২১-৩০ বছর। তবে বীর মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের পুত্র-কন্যা প্রতিবন্ধী প্রার্থীর জন্য বয়স ২১-৩২ বছর।

  • ক্রমিক নং ১ ও ২ এ বর্ণিত পদের জন্য প্রার্থীর বয়স ২১-৩৫ বছর
  • প্রার্থীর বয়স কম/বেশি হলে আবেদনপত্র গ্রহণযোগ্য হবে না
  • প্রার্থীগণের বয়সের ক্ষেত্রে কোন এফিডেভিট গ্রহণযোগ্য নয়

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লিখিত ন্যুনতম শিক্ষাগত যোগ্যতার অতিরিক্ত শিক্ষাগত যোগ্যতা থাকলে তা আবেদনে উল্লেখ করতে হবে, অন্যথায় পরবর্তীতে উক্ত শিক্ষাগত যোগ্যতা কোন ক্রমেই প্রহণ করা হবে না।

এস.এস.সি বা সমমান, এইচ.এস.সি বা সমমান এবং অনুমোদিত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক প্রদত্ত সিজিপিএ তথা প্রচলিত গ্রেডিং পদ্ধতির পূর্বের বিভাগ/শ্রেণীর সমতাকরণ সংক্রান্ত শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জারীকৃত প্রজ্ঞাপন অনুসরণ করা হবে।

চার বছর মেয়াদি স্নাতক/স্নাতকোত্তর (সম্মান) ডিগ্রিধারী প্রার্থীদের জমাকৃত সনদ/মার্কশিট/টেস্টিমোনিয়ালে যদি ৪ (চার) বছর মেয়াদি স্নাতক (সম্মান) উল্লেখ না থাকে তবে অর্জিত ডিগ্রি ৪ বছর মেয়াদি স্নাতক/স্নাতকোত্তর সম্মান মর্মে বিভাগীয় প্রধান/পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক/রেজিস্ট্রার কর্তৃক প্রদত্ত প্রত্যয়নপত্রের সত্যায়িত কপি আবেদনপত্রের সঙ্গে অবশ্যই জমা দিতে হবে। অন্যথায় তাদের অর্জিত ডিগ্রি ৩ (তিন) বছর মেয়াদি হিসেবে গণ্য করা হবে।

প্রার্থীর চাকরির অভিজ্ঞতা প্রযোজ্য ক্ষেত্রে/ লিড অডিটর ও ইন্টারনাল অডিটর কোর্স (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) সংক্রান্ত সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কর্তৃক প্রদত্ত প্রত্যয়ন পত্র প্রমাণক হিসেবে দাখিল করতে হবে।

লিখিত পরীক্ষার সময় প্রয়োজনীয় কলম, রাবার, পেন্সিল, সাধারণ ক্যালকুলেটর ইত্যাদি সঙ্গে আনতে পারবে। অন্য কোন ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস, ব্যবহার করা যাবে না। প্রার্থীর অনুকূলে প্রদেয় প্রবেশপত্রে লিপিবদ্ধ নিমমাবলী অনুসরণ করা প্রার্থীর জন্য বাধ্যতামূলক।

প্রার্থীর দাখিলকৃত কাগজপত্র জাল, মিথ্যা বা ভুয়া প্রমাণিত হলে প্রারীর প্রার্থীতা বাতিল করা হবে। তাছাড়া প্রার্থী কোন তথ্য গোপন করে বা ভুল তথা প্রদান করে চাকরিতে নিয়োগপ্রাপ্ত হলে কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে দায়ী হবেন না। এ ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট প্রার্থীর নিয়োগাদেশ বাতিলসহ তার বিরুদ্ধে আইননানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

যদি কোন প্রার্থী বাংলাদেশী নাগরিক না হন কিংবা বাংলাদেশের নাগরিক নন এমন কোন ব্যক্তিকে বিয়ে করেন বা করার জন্য সংকল্প করেন কিংবা কোন ফৌজদারী আদালত কর্তৃক নৈতিক শৃংখলাজনিত অভিযোগে দন্ডিত হন কিংবা কোন সরকারী বা স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান বা স্থানীয় কর্তৃপক্ষের চাকরি হতে বরখাস্ত হয়ে থাকেন, তবে তিনি আবেদন করার জন্য যোগ্য বিবেচিত হবেন না।

বীর মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার পুত্র/কন্যা কেউ কোন পদে নিয়োগের জন্য সুপারিশ প্রাপ্ত হলে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় হতে ভেরিফিকেশনের পর তদের নিয়োগের বিষয়টি চূড়ান্ত করা হবে।

কোনরূপ প্রভাব বিস্তারের প্রচেষ্টা প্রাথীর অযোগ্যতা হিসেবে বিবেচনা করা হবে। নির্বাচনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য প্রাথথীদের কোন প্রকার টি.এ/ডি,এ দেওয়া হবে না। আবেদনপত্র গ্রহণ ও বাতিল করার ক্ষেত্রে কোন কারণ দর্শানো ব্যতিরেকে কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তই চুড়ান্ত বলে গণ্য হবে।

কর্তৃপক্ষ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লিখিত পদের সংখ্যা কম/বেশি/বাতিল করার অধিকার সংরক্ষণ করে। মৌখিক পরীক্ষার সময় প্রার্থীকে নিম্নবর্ণিত কাগজপত্র/সনদপত্র দাখিল করতে হবে।

শিক্ষাগত যোগ্যতার সকল মুল/সাময়িক সনদপত্র। সনদপাত্রের এক সেট সত্যায়িত ফটোকপি (প্রথম শ্রেণির গেজেটেড সরকারি কর্মকর্তা কতৃক) দাখিল করতে হবে।

জাতীয় পরিচয়পত্র/জন্ম নিবন্ধনপত্রসহ প্রযোজ্য অন্যান্য সনদ, প্রত্যয়নপত্রের সুলকপি আনতে হবে। উক্ত সনদ/কাগজপত্রের এক সেট সত্যায়িত ফটোকপি প্রেথম শ্রেণির গেজেটেভ সরকারি কর্মকর্তা কর্তৃক) দাখিল করতে হবে। তাছাড়া চাকুরীরত প্রার্থীদের মন্ত্রণালয়/বিভাগ/ অধিদপ্তর/সংস্থার অনুমতি পত্র সাক্ষাৎকারের সময় দাখিল করতে হবে। অন্যথায় সাক্ষাৎকার গ্রহণ করা হবে না।

বিভাগীয়/চাকরিরত প্রার্থীদেরকে অবশ্যই যথাযথ কর্তৃপক্ষের সাখ্যমে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নির্ধারিত প্রক্রিয়া অনুসরপপূর্বক আবেদন করতে হবে। আবেদনপত্রের কোন অগ্রিম কপি গ্রহণযোগ্য বলে বিবেচিত হবে না।

বীর মুক্তিযোদ্ধার পুত্র/কন্যা হিসেবে আবেদনকারী প্রার্থীকে পিতার/মাতার বীর মুক্তিযোদ্ধা সনদের মূলকপি প্রদর্শন ও সত্যায়িত কপি জমা প্রদান করতে হবে ।

প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের সমাজসেবা অধিদপ্তরের অধীন জেলা সমাজসেবা অফিসের উপপরিচালক/ দায়িতপ্রাপ্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা কর্তৃক স্থাক্ষরিত প্রতিবন্ধী সনদের মূল কপি প্রদর্শন ও সত্যায়িত কপি জমা প্রদান করতে হবে।

নিয়মিত চাকরির খবর পেতে আমাদের ফেসবুক পেজ এ যুক্ত হতে পারেন

Leave a Comment