বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ঃ বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন জেলা পর্যায়ে আইটি/হাই-টেক পার্ক স্থাপন শীর্ষক প্রকল্পের মেয়াদকালীন সময়ের জন্য সম্পূর্ণ অস্থায়ী ভিত্তিতে নিম্নবর্ণিত শূন্য পদসমূহ পূরণের জন্য বাংলাদেশের প্রকৃত নাগরিকদের নিকট হতে আবেদন আহবান করা যাচ্ছে।

হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ নিয়োগ ২০২২

বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ এর রাজস্ব খাতের নিম্নবর্ণিত শূন্য পদে অস্থায়ী ভিত্তিতে পূরণের জন্য বাংলাদেশের প্রকৃত নাগরিকদের নিকট হতে দরখাস্ত আহবান করা যাচ্ছ। আবেদনের নিয়মসহ সকল তথ্য বিস্তারিত দেখে নিন।

চাকরির ধরনসরকারি চাকরি
জেলাসকল জেলা
সংস্থাবাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ
সাইটhttp://bhtpa.gov.bd
মোট পদ০২টি
পদের সংখ্যা১০ জন
বয়স১৮-৩৫ বছর
শিক্ষাগত যোগ্যতাস্নাতক/ডিপ্লোমা
আবেদন শুরু২২ সেপ্টেম্বর, ২০২২
আবেদনের শেষ তারিখ০৬ অক্টোবর, ২০২২
আবেদনের ঠিকানাerecruitment.bcc.gov.bd

দেখে নিনঃ চলমান সকল চাকরির বিজ্ঞপ্তির তালিকা

বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি 2022

পদের নামঃ উপ-সহকারী প্রকৌশলী (সিভিল)
পদ সংখ্যাঃ ০৫ টি
শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে ডিপ্লোমা ডিগ্রি
বেতন স্কেলঃ ১৬,০০০-৩৮,৬৪০ টাকা।

পদের নামঃ কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক-কাম অফিস সহকারী
পদ সংখ্যাঃ ০৫ টি
শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ স্নাতক/সমমানের ডিগ্রি
অন্যান্য যোগ্যতাঃ কম্পিউটার টাইপিং-এ প্রতি মিনিটে শব্দের গতি বাংলা ও ইংরেজিতে যথাক্রমে ২০ ও ২০ শব্দ
বেতন স্কেলঃ ৯,৩০০-২২,৪৯০ টাকা।

বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২
বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

আরো দেখতে পারেন-

হাইটেক পার্ক নিয়োগের কিছু শর্তাবলী

আগ্রহী সকল প্রার্থীকে অনলাইনে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আগামী ২২/০৬/২০২২ তারিখ হতে ২৮/০৭/২০২২ তারিখ রাত ১১:৫৯ মিঃ এর মধ্যে আবেদন করতে হবে। নির্ধারিত সময়ের পরে কোন আবেদন গ্রহণ করা হবে না। আবেদনকারীকে তার সর্বশেষ অর্জিত শিক্ষাগত যোগ্যতার বিষয়টি আবেদনে উল্লেখ করতে হবে।

নির্দিষ্ট তারিখে প্রার্থীর বয়স অনূর্ধ ৩৫ বছর হতে হবে। তবে গাড়ীচালক পদের অভিজ্ঞ প্রার্থীদের বয়স ৪০ (চল্লিশ) বছর পর্যন্ত। সংশ্লিষ্ট কাজে অভিজ্ঞ প্রার্থীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে। এসএসসি সনদের ভিত্তিতে বয়স নির্ধারণ করা হবে। বয়স প্রমাণের জন্য এফিডেভিট গ্রহণযোগা হবে না।

অনলাইনে আবেদনের জন্য ওয়েব সাইটে প্রবেশ করে প্রথমে নিবন্ধন করতে হবে। নিবন্ধনের জন্য ই-মেইল ও মোবাইল নম্বর আবশাক। নিবন্ধন সম্পন্ন হওয়ার পর নিবন্ধনকারীর ই-মেইলে ভেরিফিকেশন লিংক এবং পাসওয়ার্ড প্রেরণ করা হবে। ই-মেইল এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করে আবেদনের প্রয়োজনীয় ধাপসমূহ সম্পন্ন করতে হবে। প্রয়োজনে সংশ্লিষ্ট ওয়েব সাইট হতে নিবন্ধন ও আবেদন গাইডলাইন অনুসরণ করতে হবে।

আবেদনকারীগণকে পরীক্ষার ফি বাবদ ১১২/- (একশত বারো) টাকা ডাক বিভাগের নগদ মাধ্যমে (বিস্তারিত অনলাইন ফর্মে পাওয়া যাবে) জমা করতে হবে।

নিয়োগের ক্ষেত্রে সরকারী বিধি-বিধান এবং মুক্তিযোদ্ধাসহ সকল কোটা পদ্ধতি অনুসরণ করে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে। কোটাধারী প্রার্থীদের আবেদনের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট ডকুমেন্ট আপলোড করতে হবে।

বিভাগীয় প্রার্থীদের ক্ষেত্রে (একই নিয়োগ বিধির আওতায় নিয়োগপ্রাপ্ত বা নিয়োজিত কর্মচারী) যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমতি গ্রহপূর্বক অনুমতিপত্রসহ আবেদন করতে হবে। চাকুরিরত প্রার্থীদের সকল শর্ত পূরণ সাপেক্ষে আবেদন ফরম পূরণের সময় ঘরে টিক চিহ্ন দিতে হবে।

প্রার্থী কর্তৃক প্রদত্ত কোন তথ্য বা দাখিলকৃত কাগজপত্র জাল, মিথ্যা বা ভূয়া প্রমাণিত হলে কিংবা পরীক্ষায় নকল বা অসদুপায় অবলম্বন করলে সংশ্লিষ্ট প্রার্থী প্রার্থীতা বাতিল করা হবে এবং তার বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ভুল তথা/জাল কাগজপত্র প্রদর্শিত হলে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ যে কোন প্রার্থীর প্রার্থীতা বাতিল করার ক্ষমতা কর্তৃপক্ষ সংরক্ষণ করেন।

প্রার্থীকে অবশ্যই বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে। বাংলাদেশের নাগরিক নন এমন কারও সাথে বৈবাহিক সূত্রে আবদ্ধ হয়ে থাকলে কিংবা বিবাহের জন্য অঙ্গীকারবদ্ধ হয়ে থাকলে কিংবা কোন ফৌজদারি আদালত কর্তৃক নৈতিক অভিযোগে দন্ডিত হন কিংবা কোন সরকারি বা স্থায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান হতে বরখাস্ত হয়ে থাকেন এবং উক্তরুপ বরখাস্তের পর দুই বর অতিক্রান্ত না হয়ে থাকে, তবে তিনি আবেদন করার জন্য যোগ্য বিবেচিত হবেন না।

লিখিত ও ব্যবহারিক (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীকে মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেয়া হবে। অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ কর্তৃক জারীকৃত পরিপত্রের সংযোজনীতে নির্ধারিত সাকুল্য বেতন কাঠামোর বিধি-বিধান প্রযোজ্য হবে।

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লিখিত পদের সংখ্যা কর্তৃপক্ষের প্রয়োজনে হাস/বৃদ্ধি হতে পারে। যেকোন আবেদনপত্র বাতিল ও সংরক্ষণসহ নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তই চুড়ান্ত বলে গণ্য হবে। নির্বাচনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য আবেদনকারীকে কোন প্রকার যাতায়াত ভাতা ও দৈনিক ভাতা প্রদান করা হবে না।

সবার আগে নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজ এ যুক্ত হতে পারেন

Leave a Comment