বিপিএসসি নন-ক্যাডার নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২১

বিপিএসসি নন-ক্যাডার নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২১ঃ ৩৪৫০ পদে এক বিশাল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (বিপিএসসি)। পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (নন-ক্যাডার), বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন সচিবালয়, ঢাকা, নিম্নলিখিত পদসমূহে সরাসরি নিয়োগের জন্য যোগ্য প্রার্থীদের থেকে অনলাইনে আবেদনপত্র আহবান করছেন।

চাকরির ধরনসরকারি চাকরি
জেলাসকল জেলা
চাকরি দাতা প্রতিষ্ঠানবাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (বিপিএসসি)
অফিসিয়াল ওয়েবসাইটhttps://bpsc.portal.gov.bd
মোট পদঅসংখ্য
পদের সংখ্যা৩৪৫০ জন
বয়সসীমা১৮-৩০ বছর
শিক্ষাগত যোগ্যতাডিপ্লোমা/বিএসসি
আবেদন প্রক্রিয়া শুরু২৮ অক্টোবর, ২০২১
আবেদনের শেষ তারিখ২৫ নভেম্বর, ২০২১
আবেদনের মাধ্যমটেলিটক অনলাইন

আরো দেখুন- খাদ্য মন্ত্রণালয় নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

বিপিএসসি নন-ক্যাডার নিয়োগ ২০২১

শূণ্যপদঃ বিজ্ঞপ্তির পিডিএফ ফাইলে দেখুন
পদের সংখ্যাঃ ৩৪৫০ জন
শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ
ডিপ্লোমা বা বিএসসি ডিগ্রি থাকতে হবে
বেতন স্কেলঃ গ্রেড-৯ ও ১০ অনুযায়ী

বিপিএসসি নন-ক্যাডার নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২১
বিপিএসসি নন-ক্যাডার নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

এছাড়া আরো দেখুন-

নিয়োগ সংক্রান্ত নীতিমালা

লিখিত পরীক্ষার বিষয়ভিত্তিক সিলেবাস এবং নন-ক্যাডার পরীক্ষা নীতিমালা কমিশনের ওয়েবসাইট-এ পাওয়া যাবে। বিজ্ঞাপনে উল্লিখিত পদ/পদসমূহের চুড়ান্ত সুপারিশ প্রণয়নের ক্ষেত্রে সরকারের সর্বশেষ কোটানীতি অনুসরণ করা হবে।

লিখিত পরীক্ষায় উত্তর প্রদানের ভাষা বাংলা ও ইংরেজি বিষয়ের প্রশ্নের উত্তর সংশ্লিষ্ট ভাষাতে লিখতে হবে। অন্যান্য বিষয়ের প্রশ্নের উত্তর বাংলা বা ইংরেজি-এর যে কোন একটিতে লিখা যাবে। একটি বিষয়ের উত্তরে উভয় ভাষা ব্যবহার করা যাবে না তবে শব্দসমূহ ইংরেজিতে লেখা যাবে | কোন বিষয়ের প্রশ্নপত্রে অন্য কোনোরুপ নির্দেশ থাকলে উক্ত বিষয়ের ক্ষেত্রে এ নির্দেশ অনুযায়ী প্রশ্নোত্তর লিখতে হবে।

শিক্ষাগত যোগ্যতার সকল মূল অথবা সাময়িক সনদ, অভিজ্ঞতা সনদের মূলকপি (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে), মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক জারীকৃত সর্বশেষ সার্কুলার অনুযায়ী মুক্তিযোদ্ধার বয়সের প্রমাণক/ডকুমেন্টসের মূল কপি (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে), প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের সমাজসেবা অধিদপ্তর কর্তৃক জারীকৃত প্রতিবন্ধী সনদ/পরিচয়পত্র প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) এবং জাতীয় পরিচয়পত্র অবশ্যই দাখিল করতে হবে।

সরকারি/ আধাসরকারি/স্বায়ন্তশাসিত স্থানীয় সংস্থায় চাকুরিরত প্রার্থীদেরকে নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সিল স্বাক্ষরিত ছাড়পত্রের মূল কপি এবং সত্যায়িত ফটোকপি মৌখিক পরীক্ষার বোর্ডে দাখিল করতে হবে। অন্যথায় মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে না। মৌখিক পরীক্ষার জন্য আলাদাভাবে প্রার্থীদের নামে কোন সাক্ষাৎকারপত্র প্রেরণ করা হবে না। অনলাইনে রেজিস্ট্রেশনকালে ডাউনলোডকৃত প্রবেশপত্রই মৌখিক পরীক্ষার জন্য প্রযোজ্য হবে।

কেন্দ্রতিত্তিক রেজিস্ট্রেশন নম্বর প্রার্থীকে টাকা/রাজশাহী/ চট্টগ্রাম/খুলনা/বরিশাল/সিলেট/রংপুর/ময়মনসিংহ কেন্দ্রের মধ্যে যেকোন একটি কেন্দ্রের বিপরীতে অনলাইন রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে হবে। প্রার্থী যে কেন্দ্র নির্বাচন করবেন সে কেন্দ্রের জন্য নির্ধারিত রেজিস্ট্রেশন নম্বরের রেঞ্জ হতে কম্পিউটারাইজড পদ্ধতিতে প্রার্থীকে রেজিস্ট্রেশন নম্বর প্রদান করা হবে। তবে বাছাই/লিখিত পরীক্ষা এবং মৌখিক পরীক্ষা কেবলমাত্র ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে।

সরকারি চাকরির খবর পেতে আমাদের ফেসবুক পেজ এ যুক্ত হতে পারেন

Leave a Comment